মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৩৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
নরসিংদীতে মানবতা সমাজ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ নরসিংদী মডেল প্রেস ক্লাব এর ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত শিবপুর উপজেলা যুবদলের দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত নরসিংদীর রায়পুরায় গু*লি করে ৬০ লাখ টাকা ছিনতাই নরসিংদীতে পানিতে ডুবে দুই ভাই নিহত নরসিংদী শহরের শিক্ষাচত্বর সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু পৌর পার্কে রমজানে সাশ্রয়ী বাজারের শুভ উদ্বোধন পলাশে জোরপূর্বক মাটি বিক্রি কৃষিজমি পুকুরে পরিণত চর আড়ালিয়া(ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মাসুদা জামান নির্বাচিত ফুলকুড়ি কিন্ডার গার্টেন এর ২২ তম বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত উই ক্যান স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান
নরসিংদীর রায়পুরায় বিশিষ্ট কাপড় ব্যবসায়ীকে জড়িয়ে পোস্টার করায় এলাকাবাসীর তীব্র নিন্দা

নরসিংদীর রায়পুরায় বিশিষ্ট কাপড় ব্যবসায়ীকে জড়িয়ে পোস্টার করায় এলাকাবাসীর তীব্র নিন্দা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

নরসিংদী রায়পুরা উপজেলার আমিরগঞ্জ ইউনিয়নের নলবাটা গ্রামে বালু ব্যবসাকে কেন্দ্র করে রফিকুল গং ও গোলজার গং এর মধ্যে বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষে আহত গোলজার মেম্বারের পোস্টারিং-এ ব্যবসায়ীকে জড়িয়ে পোস্টার প্রচার করায় এলাকাবাসী তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছে। ঘটনার বিবরণ ও মামলা সূত্রে জানা যায়, গত জুলাই মাসের ১০ তারিখ শুক্রবার সকাল ১১ ঘটিকায় গুলজার হোসেন গং অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হইয়া বালু ব্যবসায়ী রফিকুলের ইট, বালু ট্রলি দিয়ে ভরে নিয়ে যাচ্ছে। রফিকুলের স্ত্রী বাধা দিতে গেলে গোলজার গং এলাপাথাড়ি হামলা ও লুটপাট করে এবং এই বলে হুমকি দেয় গ্রামে ইট, বালির ব্যবসা করতে হলে গোলজারকে ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দিতে হবে। এই বিষয়ে রফিকুলের স্ত্রী শেফালী বেগম নরসিংদী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন, যাহার নং- রায়পুরা সি.আর মোকদ্দমা-২০৬/২০২০। উক্ত মামলায় গোলজার জেল হাজতে যায়। গুলজার জেল হাজত থেকে জামিনে মুক্তি পেয়ে রফিকুলের পরিবারের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে ৩০ নভেম্বর পুণরায় হামলা করে। আত্মরক্ষার স্বার্থে রফিকুল পাল্টাপাল্টি হামলা করে। এতে গোলজার মেম্বার আহত হয়। আহত গোলজার মেম্বারের টেটাবিদ্ধ ছবিসহ পোস্টারিং-এ বিশিষ্ট কাপড় ব্যবসায়ী দেলোয়ার হোসেন ও মিস্টার কে জড়িয়ে সন্ত্রাসী বলে আখ্যায়িত করা হয়। এতে এলাকাবাসীর মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এলাকাবাসী জানায়, দেলোয়ার হোসেন ও মিস্টার বিশিষ্ট কাপড় ব্যবসায়ী। তাদের পৈত্রিক ভিটা-বাড়ী নলবাটায় আছে কিন্তু ব্যবসায়ীক কারণে তারা ঢাকায় অবস্থান করে। বিশেষ সামাজিক অনুষ্ঠান ছাড়া তারা এলাকায় আসে না। এমনকি ঘটনার দিনও তারা এলাকায় ছিল না। অথচ একটি পক্ষ তাদের সম্মানহানি ও বিশেষ ফায়দা লুটার জন্য তাদের ছবি জড়িয়ে পোস্টারিং করেছে এবং তাদেরকে সন্ত্রাসী হিসেবে উল্লেখ করেছে। এলাকাবাসী দেলোয়ার ও মিস্টারকে জড়িয়ে পোস্টার প্রচার করায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ




raytahost-demo
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD