মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
নরসিংদীতে মানবতা সমাজ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ নরসিংদী মডেল প্রেস ক্লাব এর ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত শিবপুর উপজেলা যুবদলের দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত নরসিংদীর রায়পুরায় গু*লি করে ৬০ লাখ টাকা ছিনতাই নরসিংদীতে পানিতে ডুবে দুই ভাই নিহত নরসিংদী শহরের শিক্ষাচত্বর সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু পৌর পার্কে রমজানে সাশ্রয়ী বাজারের শুভ উদ্বোধন পলাশে জোরপূর্বক মাটি বিক্রি কৃষিজমি পুকুরে পরিণত চর আড়ালিয়া(ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মাসুদা জামান নির্বাচিত ফুলকুড়ি কিন্ডার গার্টেন এর ২২ তম বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত উই ক্যান স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান
রায়পুরায় জীবনের নিরাপত্তার দাবি জানিয়েছেন মেয়র ও ২৪ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান

রায়পুরায় জীবনের নিরাপত্তার দাবি জানিয়েছেন মেয়র ও ২৪ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান

স্টাফ রিপোর্টার: নরসিংদীর রায়পুরায় জীবনের নিরাপত্তার দাবি জানিয়েছেন মেয়র ও ২৪ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান।

ইউপি চেয়ারম্যান জাফর ইকবাল মানিককে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যার প্রতিবাদে রায়পুরা প্রেসক্লাব হল রুমে মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান ২৫ জনপ্রতিনিধি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন রায়পুরা চেয়ারম্যান ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ও শ্রীনগর ইউপি চেয়ারম্যান রিয়াজ মোর্শেদ খান রাসেল।

লিখিত বক্তব‍্যে চেয়ারম‍্যান রাসেল বলেন, ‘আমরা জনপ্রতিনিধিরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চরম উৎকণ্ঠা ও নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে জনগণের দেওয়া অর্পিত দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছি। নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলা বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম উপজেলা। নিশ্চয়ই অবগত আছেন, রায়পুরার চরাঞ্চলের ছয়টি ইউনিয়নে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিগত বছরগুলিতে টেঁটা যুদ্ধসহ নানা বিশৃঙ্খলায় জর্জরিত ছিলো।

কিন্তু নরসিংদী-৫ রায়পুরা আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য, সাবেক সফল মন্ত্রী জননেতা রাজি উদ্দিন আহমেদ রাজু এমপি মহোদয়ের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এবং আমাদের সহযোগিতায় আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অনেকটাই উন্নতি হয়েছে। এরপরও একটি সন্ত্রাসী মহল যারা কোনো দলের নয়, ঐ টেঁটাযুদ্ধকে পুঁজি করে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় চাঁদাবাজি করে আসছিলো। তাদের স্বার্থে আঘাত লাগার কারণে বর্তমানে তারা জনপ্রতিনিধি অর্থাৎ বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও পৌরসভার মেয়রকে টার্গেট করছে।

তিনি বলেন,ইতিপূর্বে এই সন্ত্রাসীরা চরের বাঁশগাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সিরাজুল হককে নির্মমভাবে গুলি করে হত্যা করে। আমিরগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন খানকে গাড়ি চাপা দিয়ে রহস্যজনক হত্যা করে। মরজাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান খানের উপর সন্ত্রাসী হামলার মতো ঘটনা ঘটিয়েছে।

সম্প্রতি মির্জাচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাফর ইকবাল মানিককে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করেছে। মানিক চেয়ারম্যান হত্যার এই পরিস্থিতিতে আমরা জনপ্রতিনিধিরা ও আমাদের পরিবার চরম উৎকণ্ঠা ও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। আমরা ধারণা করছি, এ পরিস্থিতিতে যে কোনো সময় যে কেউ লাশ হয়ে বাড়ি ফিরতে পারি।

তিনি আরো বললেন, বর্তমানে আমাদের ওপর জনগণের অর্পিত দায়িত্ব পালনে দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভুগছি। তাই জনগণের প্রতিনিধি হিসেবে আমাদের জীবনের নিরাপত্তার প্রয়োজন।’

এ অবস্থায় রায়পুরার পৌর মেয়র ও উপজেলার ইউপি চেয়ারম্যানদের নিরাপত্তা দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নিকট বিনীতভাবে অনুরোধ জানান তারা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন পৌরসভার মেয়র জামাল মোল্লা, চেয়ারম্যান ফোরামের সভাপতি ও অলিপুরা ইউপি চেয়ারম্যান আল আমিন ভূইয়া মাসুদ, ইউপি চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম তপন, হাবিবুল্লাহ হাবিব, আতাউর রহমান, আহসান সিকদার, মাসুদ ফরাজী, ফারুক হোসেনসহ অন্যরা।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ




raytahost-demo
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD