রবিবার, ২৩ Jun ২০২৪, ০৯:২৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
নরসিংদী জেলা শিবপুর উপজেলায় সরকারি ইটের সলিং রাস্তা উঠিয়ে ফেলেছে দুষ্কৃতকারীরা বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক সংসদ সদস্য অকুতোভয় রাজনীতিক প্রখ্যাত সাংবাদিক কামাল হায়দার স্মরণে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত এশাআতে দ্বীন নু্রানী তালিমূল কোরআন ক্যাডেট মাদ্রাসার কৃতি শিক্ষার্থীদের মাঝে পু্রুষ্কার বিতরণ লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলাও করতে হবে……… আলহাজ্ব মোঃ সামসুল ইসলাম মোল্লা নরসিংদীর শিবপুর সাব রেজিস্ট্রার নেই ..হতাশায় গ্রাহক চিত্রশিল্পী আল-আমীনের আঁকা ছবি গুলো সংরক্ষণের প্রয়োজন সুমন হত্যাকাণ্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার রায়পুরায় চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজ্বী আলী আহম্মেদ দুলু আলোচনায় শীর্ষে মনোহরদীতে স্বপন ও বেলাবতে রিটন উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত শিবপুরে দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে মনোনয়ন জমা
নরসিংদী সদর উপজেলার নজরপুরে বালু ব্যবসাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত ১

নরসিংদী সদর উপজেলার নজরপুরে বালু ব্যবসাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত ১

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
নরসিংদী সদর উপজেলার নজরপুর ইউনিয়নে বালু ব্যবসাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসী বাহিনীর হাতে মোঃ ইকবাল হোসেন (২৫) নিহত হয়। গত ১ আগষ্ট রোববার সকাল ৭ টায় ইকবাল হোসেন (২৫) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। এলাকাবাসী ও নিহতের আত্মীয়-স্বজনের সূত্রে জানা যায়, গত ২৯ জুলাই বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭.৩০ মিনিটে নিহত ইকবাল ও তার ভাতিজা ( আনোয়ার) বাড়ী ফেরার পথে শেখ হাসিনা সেতুর পূর্বপান্তে বোখারী মার্কেটের সাথে শাপলা রেস্টুরেন্টের সামনে এসে পৌচ্ছেলে পূর্বে থেকে উৎপেতে থাকা রাসেল মিয়া (২৬), পিতা- হবি মিয়া, সেলিম (৩০), পিতা- কামাল মিয়া, হবি মিয়া (৫০), পিতামৃত- বাদশা মিয়া, সর্ব সাং- দড়ি নবীপুর, নজরপুর, থানা ও জেলা – নরসিংদীসহ আরও অজ্ঞাত ৪/৫ মিলে পথ অবরুদ্ধ করে রাস্তার পাশে রাখা ইট দিয়ে ইকবালের মাথা থেঁতলিয়ে দেয়। ইকবাল ও তার ভাতিজার ডাক-চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে আসামীরা দ্রুত নরসিংদী শহরের দিকে পালিয়ে যায়। গুরুত্বর আহত ইকবাল কে উদ্ধার করে প্রথমে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার অবস্হার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে দুইদিন চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় রোববার সকালে মৃত্যু বরণ করেন ইকবাল। নিহতের লাশ দড়ি নবীপুর গ্রামে এসে পৌচ্ছালে এক হৃদয় বিদারক ঘটনার সৃষ্টি হয়। পুরো গ্রাম সহ আশপাশের গ্রামে শোকের ছায়া নেমে আসে। শত শত নারী/ পুরুষ নিহতের লাশ একনজর দেখার জন্য নিহতের বাড়ীতে ভিড় জমায়। রোববার বাদ মাগরিব নামাজের পর নিহতের জানাযা নজরপুর বটতলা মাদ্রাসা ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়। এতে নজরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব বাদল সরকার, সাবেক চেয়ারম্যান জালাল উদ্দীন সরকার, সাবেক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইসমাঈল মাস্টারসহ হাজার হাজার মুসুল্লী অংশগ্রহণ করেন। এ বিষয়ে নিহতের ভাই আবুল হোসেন বাদী হয়ে নরসিংদী মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ




raytahost-demo
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD